Skip to main content

এন্ড্রোয়েড এ Root ছাড়া Build.prop ফাইল ব্যবহার

 বর্তমান সময়ে আমাদের সকলের দৈনন্দিন কাজের জন্য আমরা এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকি। আমাদের ব্যবহার করা এই এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন প্রতিনিয়ত আমাদের বিভিন্ন যোগাযোগ চাহিদা মিটিয়ে থাকে। তাছাড়া, এই এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন বর্তমান সময়ে আমাদের সকলের প্রয়োজন হয়ে দাড়িয়েছে।


কিন্তু, আমরা যারা এই এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকি, তারা হয়ত অনেকেই একটি ব্যপার জানি না আর তা হলো, আমাদের ব্যবহার করা এই এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনকে আমরা আমাদের প্রয়োজনমত কাস্টমাইজড করে ব্যবহার করতে পারি। নিজেদের প্রয়োজনীয় বিভিন্ন সেটিং এবং ফিচার আমরা এতে যুক্ত করতে পারি। 

আর এই কাজের জন্য আমরা সবসময় ব্যবহার করে থাকি Build.prop ফাইল। এই Build.prop ফাইল ব্যবহারের মাধ্যমে আমরা নিজেদের বিভিন্ন প্রয়োজনীয় ফিচার আমাদের এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে যুক্ত করতে পারি। তবে, এই Build.prop ফাইলটি আপনার স্মার্টফোনে ব্যবহারের জন্য অবশ্যই আপনার স্মার্টফোনটি Root এক্সেস থাকতে হবে।

কিন্তু যদি আপনি এই Build.prop ফাইলটি Root এক্সেস ব্যতীতই আপনার এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে ব্যবহার করতে চান, তাহলে প্রক্রিয়া কী? হ্যা, আজকের আর্টিকেলে আমরা আপনাকে আপনার ব্যবহার করা এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন Root করা ব্যতীতই এই Build.prop ফাইল ব্যবহার পদ্ধতি শেখাবো। 

Build.prop ফাইল কী?

আমরা হয়ত অনেকেই জানি না যে আসলে Build.prop ফাইল কী এবং তা দিয়ে কি করা হয়? মূলত, Build.prop ফাইল হলো এমন একটি কনফিগারেশন, যাতে আপনি বিভিন্ন কমান্ড যুক্ত বা রিমুভ করার মাধ্যমে আপনার ব্যবহার করা এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনের বিভিন্ন সেটিং ও কনফিগার রিমুভ করতে পারবেন বা বিভিন্ন ফিচার যুক্তও করতে পারবেন। সুতরাং, বুজা যায় যে Build.prop ফাইল আমাদের সকলের জন্য একটি প্রয়োজনীয় বিষয়। 

এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে Root এক্সেস ব্যতীত Build.prop ফাইল ব্যবহার করার উপায়

আমরা যারা কমবেশি Build.prop ফাইল সম্পর্কে জানি, আমরা সকলেই এই Build.prop ফাইল ব্যবহার থাকি। আর আমরা যারা Build.prop ফাইল ব্যবহারের উপায় সম্পর্কে জানি না, তারা সকলেই Build.prop ফাইল ব্যবহারের উপায় সম্পর্কে জানতে চায়। কিন্তু ইন্টারনেটে Build.prop ফাইল Root এক্সেস স্মার্টফোনে ব্যবহারবিধি নিয়ে হাজারো আর্টিকেল থাকলেও Root এক্সেস ব্যতীত স্মার্টফোনে Build.prop ফাইল ব্যবহারের উপায় নিয়ে তেমন আর্টিকেল বা ব্যবহারবিধি নেই।

সুতরাং, আজকের আর্টিকেলে আমরা আপনাকে আপনার এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে Root এক্সেস ব্যতীত Build.prop ফাইল ব্যবহার করার উপায় সম্পর্কে জানাবো।

  • এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে Root এক্সেস ব্যতীত Build.prop ফাইল ব্যবহার করার জন্য সর্বপ্রথম আপনার কম্পিউটারে ADB এবং Fastboot drivers ডাউনলোড করে ইনস্টল করে নিন। যদি আপনি ADB এবং Fastboot drivers ইনস্টল করার পদ্ধতি না জেনে থাকেন, তাহলে এই আর্টিকেলটি পড়ে আসুন।
  • তারপর একটি এডভান্স টেক্সট এডিটর ইনস্টল করুন। আপনি চাইলে Notepade ++ বা Sublime Text ব্যবহার করতে পারেন।
  • তারপর আপনার এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনটি বন্ধ করে নিন এবং তা Recovery Mode এ নিয়ে আসুন। তারপর সেখান হতে Mount অপশনে টাচ করুন।
  • তারপরের পেজে আপনাকে কিছু অপশন দেখানো হবে। উক্ত পেজে লক্ষ রাখুন যেনো অবশ্যই System অপশনটি মার্ক করা থাকে এবং Mount system partition read-only অপশনটি যেনো মার্কবিহীন থাকে।
  • তারপর আপনার স্মার্টফোনটি কম্পিউটারের সাথে কানেক্ট করুন এবং তারপর ADB window চালু করুন।
  • সেখানে adb pull /system/build.prop <path to save file> কমান্ডটি টাইপ করুন। তারপর কমান্ডে উল্লেখ করা আপনার দেওয়া লোকেশনে একটি Build.prop ফাইল দেখতে পাবেন। path to save file অপশনে আপনি যেই ড্রাইভে ফাইলটি সেভ করতে চান, সেই ড্রাইভের নামটি দিন।
  • সেই ফাইলের উপর রাইট ক্লিক করুন এবং Edit With Notepade ++ সিলেক্ট করুন। অথবা, আপনার নিকট কোন এডভান্স টেক্সট এডিটর থাকলে তা ব্যবহার করুন।
  • তারপর আপনার টেক্সট এডিটরটি অপেন হবে এবং আপনি সেখানে আপনার এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনের সমস্ত কমান্ড লাইন দেখতে পাবেন। 
  • তারপর আপনি আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী কমান্ড যুক্ত করে বা রিমুভ করে তা পুনরায় File > Save থেকে সেভ করে নিন।
  • তারপর মোডিফাই করা এই Build.prop ফাইলটি পুনরায় আপনার স্মার্টফোনে পাঠাতে হবে। তার জন্য পুনরায় ADB Window চালু করুন।
  • তারপর তাতে adb push <path to your file> /system/build.prop কমান্ডটি টাইপ করুন। ব্যাস, আপনার Build.prop ফাইলটি আপনার স্মার্টফোনে ট্রান্সফার হয়ে গেসে।
  • তারপর আপনার এই Build.prop ফাইলের সমস্ত পারমিশন Allow করতে হবে & এজন্য আপনাকে পুনরায় adb shell কমান্ড টাইপ করতে হবে। 
  • তারপর আপনাকে পুনরায় chmod 644 /system/build.prop এই কমান্ডটি টাইপ করতে হবে। এখন আপনি আপনার স্মার্টফোনে কাজ করার জন্য সমস্ত পারমিশন দিয়েছেন। 

ব্যাস, এবার আপনার মোবাইল আপনার কম্পিউটার থেকে ডিসকানেক্ট করুন এবং আপনার মোবাইল চালু করুন। এইভাবে আপনি খুব সহজেই এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে Root এক্সেস ব্যতীত Build.prop ফাইল ব্যবহার করতে পারবেন। এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে Root এক্সেস ব্যতীত Build.prop ফাইল ব্যবহার করার উপায় নিয়ে লেখা আমাদের আর্টিকেলটি আপনার ভালো লেগে থাকলে কমেন্ট ও শেয়ার করতে ভুলবেন না। 




Comments

Popular posts from this blog

কিভাবে এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে নটিফিকেশন লুকাবেন

  বর্তমান সময়ে এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন আমাদের সকলের জন্য একটি প্রয়োজনীয় বস্তু হয়ে দাড়িয়েছে। আমাদের সার্বিকক যোগাযোগের জন্য সর্বপ্রথম আমরা এই এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনকে বেছে নিই। আমরা প্রতিনিয়ত আমাদের সকল কাজের জন্য এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনকে প্রাথমিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছি।  Google প্রায়ই কিছুদিন পর পর এন্ড্রোয়েড অপারেটিং সিস্টেমে নতুন কিছু আপডেট নিয়ে আসে। Google এবার Android Oreo ভার্সনে ইউজারদের জন্য নতুন একটি আপডেট এনেছে আর তা হলো, Android Background Notification নামে একটি ফিচার। এই Android Background Notification ফিচারটির মাধ্যমে আপনি আপনার Android Oreo ভার্সনে আপনার ব্যাকগ্রাউন্ডে রানিং থাকা সমস্ত এপস সম্পর্কে নোটিফিকেশন পাবেন এবং কোন কোন এপস আপনার ব্যাটারির ক্ষতি করছে, তা সম্পর্কে জানতে পারবেন। কিন্তু, এই Android Background Notification ফিচারটি ইউজারদের জন্য উপকারী হলেও, অনেক ইউজার এই Android Background Notification ফিচারটি ব্যবহার করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে না। কেননা, একটু পর পর নোটিফিকেশন আসতে থাকা সকলের জন্যই বিরক্তির কারণ হয়ে দাড়ায়।  সুতরাং, যদি আপনি Android Oreo ভার্সনের এন

কিভাবে এন্ড্রোয়েড ফোনে একাধিক একাউন্ট করবেন

  আমাদের প্রাত্যাহিক জীবনে একটি এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন কতটুকু জরুরী, তা ভাষায় বুজিয়ে বলার আক্ষেপ রাখে না। একটি এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন আমাদের জীবনের সকল কাজ খুব সহজেই সমাধান করে দেয়। আমরা সকলেই আজকাল নিজেদের সার্বিক প্রয়োজনে এই এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকি।  বর্তমানে এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনের একটি বিশেষ ফিচার হলো, Android Multiple User Account Feature। আমরা আমাদের নিজস্ব ব্যবহার করা এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন বিভিন্ন প্রয়োজনে অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করে থাকি। এক্ষেত্রে অবশ্যই আমরা আমাদের স্মার্টফোনের ব্যপারে তেমন একটি সিকিউরিটি নিশ্চিত করতে পারি না।  তাই, Google ইউজারদের সিকিউরিটি নিশ্চিত করতে এবার নিয়ে এলো Android Multiple User Account Feature নামে একটি ফিচার। এই Android Multiple User Account Feature ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি সহজেই আপনার স্মার্টফোনে ইউজার একাউন্ট পরিবর্তন করে আপনার স্মার্টফোনটি অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারবেন। এতে অন্যান্য কেউ আপনার পার্সোনাল ইনফরমেশনে সহজেই এক্সেস নিতে পারবে না এবং আপনাকে আপনার সিকিউরিটি নিয়ে চিন্তিত হতে হবে না। কিভাবে Android Multiple User Account Feature

উইন্ডোজ ১০ অটোমেটিক আপডেট বন্ধ করার উপায়

  উইন্ডোজ ১০ বর্তমান সময়ে বহুল ব্যবহৃত একটি গ্রাফিক্যাল অপারেটিং সিস্টেম। এই উইন্ডোজ ১০  অপারেটিং সিস্টেমটি মাইক্রোসফট কোম্পানির অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমের তুলনায় বহুল ব্যবহৃত হয়েছে এবং বহুল প্রসিদ্ধও বটে। আমরা যারা নতুন কম্পিউটার বা ল্যাপটপ ক্রয় করি, আমরা সকলেই মূলত এই উইন্ডোজ ১০ এর বিভিন্ন ভার্সন ব্যবহারের মাধ্যমে কম্পিউটার ব্যবহার শুরু করে থাকি। উইন্ডোজ ১০ এর অন্যান্য জনপ্রিয় ফিচারগুলো থেকে একটি ফিচার হচ্ছে, উইন্ডোজ ১০ অটোমেটিক আপডেট হওয়া। এই ফিচারটির মাধ্যমে মাইক্রোসফট থেকে রিলিজ করা সমস্ত আপডেট ইন্টারনেট কানেকশনের মাধ্যমে প্রতিটি কম্পিউটারে অটোমেটিক আপডেট হয়ে থাকে।  যদিও এই ফিচারটি বহুল জনপ্রিয়, কিন্তু অনেকের নিকট এই ফিচারটি একটি বিরক্তিকর কারন হয়ে উঠে। কিন্তু, উইন্ডোজ ১০ ভার্সনে উইন্ডোজ অটোমেটিক আপডেট হওয়ার বিষয়টি আপনার নিয়ন্ত্রণে নয়। কেননা, কোন সাধারণ মানুষ এই অটোমেটিক আপডেট ফিচারটি বন্ধ করতে পারেনা। সুতরাং, আপনি যদি আপনার ব্যবহার করা কম্পিউটারে উইন্ডোজ ১০ অটোমেটিক আপডেট বন্ধ করার উপায় জানতে চান, তাহলে আজকের আর্টিকেল আপনার জন্য। আজকের আর্টিকেলে আমরা আপনাকে উইন্ডোজ ১০ অটোমেটিক আ