Skip to main content

কিভাবে এন্ড্রোয়েড ফোনে একাধিক একাউন্ট করবেন

 আমাদের প্রাত্যাহিক জীবনে একটি এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন কতটুকু জরুরী, তা ভাষায় বুজিয়ে বলার আক্ষেপ রাখে না। একটি এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন আমাদের জীবনের সকল কাজ খুব সহজেই সমাধান করে দেয়। আমরা সকলেই আজকাল নিজেদের সার্বিক প্রয়োজনে এই এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকি। 


বর্তমানে এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনের একটি বিশেষ ফিচার হলো, Android Multiple User Account Feature। আমরা আমাদের নিজস্ব ব্যবহার করা এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন বিভিন্ন প্রয়োজনে অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করে থাকি। এক্ষেত্রে অবশ্যই আমরা আমাদের স্মার্টফোনের ব্যপারে তেমন একটি সিকিউরিটি নিশ্চিত করতে পারি না। 

তাই, Google ইউজারদের সিকিউরিটি নিশ্চিত করতে এবার নিয়ে এলো Android Multiple User Account Feature নামে একটি ফিচার। এই Android Multiple User Account Feature ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি সহজেই আপনার স্মার্টফোনে ইউজার একাউন্ট পরিবর্তন করে আপনার স্মার্টফোনটি অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারবেন। এতে অন্যান্য কেউ আপনার পার্সোনাল ইনফরমেশনে সহজেই এক্সেস নিতে পারবে না এবং আপনাকে আপনার সিকিউরিটি নিয়ে চিন্তিত হতে হবে না।

কিভাবে Android Multiple User Account Feature চালু করবেন

যদি আপনি আপনার এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে Android Multiple User Account Feature যুক্ত করতে চান এবং আপনার সিকিউরিটি নিশ্চিত করতে চান, তাহলে আমাদের আর্টিকেলে উল্লেখ করা পদ্ধতিগুলো মনযোগ সহকারে অনুসরণ করুন।

  • Android Multiple User Account Feature চালু করতে সর্বপ্রথম আপনার মোবাইল সেটিংসে প্রবেশ করুন এবং সেখান হতে System অপশনটি খুঁজে বের করুন। 
  • তারপর System অপশনে প্রবেশ করুন এবং সেখানে আপনি Multiple Users নামে একটি অপশন খুঁজে পাবেন, তাতে প্রবেশ করুন।
  • উক্ত পেজ হতে আপনি আপনার নিজের জন্য এবং অন্যদের জন্য আলাদা আলাদা ইউজার একাউন্ট যুক্ত করে Android Multiple User Account Feature ব্যবহার করতে পারবেন। 

Build.prop ফাইলের মাধ্যমে Android Multiple User Account Feature ব্যবহার করুন

উপরোক্ত অপশনগুলো আপনি কেবল তখনই ব্যবহার করতে পারবেন, যখন আপনার এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে Android Multiple User Account Feature ব্যবহারের জন্য Multiple Users অপশনটি থাকবে। যদি আপনার মোবাইলে Android Multiple User Account Feature ব্যবহারের কোন অপশন না থাকে, তাহলে নিম্মোক্ত পদ্ধতি অনুসরণ করুন।

  • Android Multiple User Account Feature ব্যবহারের জন্য আপনাকে সর্বপ্রথম Google Play Store থেকে BuildProp Editor এপসটি ডাউনলোড করে ইনস্টল করে নিতে হবে। এই BuildProp Editor এপসটি সম্পূর্ণ ফ্রি। 
  • তারপর BuildProp Editor এপসটি অপেন করুন এবং তাতে Root পারমিশন দিয়ে দিন।
  • তারপর পুনরায় BuildProp Editor এপসে প্রবেশ করুন এবং উপর থেকে Edit আইকন চাপুন।
  • তারপর আপনার BuildProp Editor এপসটি  এডিটিং মুডে চলে আসবে এবং আপনি স্ক্রল ডাউন করে একদম নিচে চলে আসুন এবং নিম্মোক্ত দু'টি কমান্ড লাইন যুক্ত করে দিন।
  1. fw.max_users=3
  2. fw.show_multiuserui=1
  • উপরোক্ত কোডটি যুক্ত করা হয়ে গেলে উপরে সেভ আইকন চাপুন এবং সেখান হতে Save & Exit অপশন সিলেক্ট করুন।
  • তারপর আপনার ডিভাইস একবার Reboot করে নিন। এতে করে আপনার এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে Android Multiple User Account Feature যুক্ত হয়ে যাবে এবং আপনি Android Multiple User Account Feature স্বাচ্ছন্দ্যে উপভোগ করতে পারবেন।

নোটঃ Android Multiple User Account Feature ব্যবহার করার জন্য BuildProp Editor এপসটি ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনার স্মার্টফোনে অবশ্যই Root পারমিশন থাকতে হবে। যদি আপনার স্মার্টফোনে Root পারমিশন না থাকে, তাহলে কিভাবে BuildProp Editor এপসের মাধ্যমে আপনার স্মার্টফোনে Android Multiple User Account Feature ব্যবহার করবেন, তা জানতে এই আর্টিকেলটি পড়ুন।

সাধারণত এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে Android Multiple User Account Feature থাকাটা ইউজারদের জন্য জরুরী একটি বিষয়। কেননা, আমরা বিভিন্ন প্রয়োজনে নিজেদের স্মার্টফোন অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করে থাকি। সেক্ষেত্রে আমরা ইউজার পরিবর্তন করে নিজেদের প্রাইভেসি এবং সিকিউরিটি ঠিক রাখতে পারবো। 

Android Multiple User Account Feature নিয়ে লেখা আমাদের আজকের আর্টিকেল আপনার কেমন লেগেছে, তা জানাতে ভুলবেন না। আর্টিকেলটি আপনার ভালো লেগে থাকলে বা কোন উপকারে আসলে অবশ্যই কমেন্ট ও শেয়ার করুন। Android Multiple User Account Feature নিয়ে আপনার কোন ট্রিকস জানা থাকলে তা আমাদের সঙ্গে শেয়ার করুন। টেকনোলজি সম্পর্কিত অন্যান্য আর্টিকেল পড়তে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।


















Comments

Popular posts from this blog

কিভাবে এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনে নটিফিকেশন লুকাবেন

  বর্তমান সময়ে এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোন আমাদের সকলের জন্য একটি প্রয়োজনীয় বস্তু হয়ে দাড়িয়েছে। আমাদের সার্বিকক যোগাযোগের জন্য সর্বপ্রথম আমরা এই এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনকে বেছে নিই। আমরা প্রতিনিয়ত আমাদের সকল কাজের জন্য এন্ড্রোয়েড স্মার্টফোনকে প্রাথমিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছি।  Google প্রায়ই কিছুদিন পর পর এন্ড্রোয়েড অপারেটিং সিস্টেমে নতুন কিছু আপডেট নিয়ে আসে। Google এবার Android Oreo ভার্সনে ইউজারদের জন্য নতুন একটি আপডেট এনেছে আর তা হলো, Android Background Notification নামে একটি ফিচার। এই Android Background Notification ফিচারটির মাধ্যমে আপনি আপনার Android Oreo ভার্সনে আপনার ব্যাকগ্রাউন্ডে রানিং থাকা সমস্ত এপস সম্পর্কে নোটিফিকেশন পাবেন এবং কোন কোন এপস আপনার ব্যাটারির ক্ষতি করছে, তা সম্পর্কে জানতে পারবেন। কিন্তু, এই Android Background Notification ফিচারটি ইউজারদের জন্য উপকারী হলেও, অনেক ইউজার এই Android Background Notification ফিচারটি ব্যবহার করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে না। কেননা, একটু পর পর নোটিফিকেশন আসতে থাকা সকলের জন্যই বিরক্তির কারণ হয়ে দাড়ায়।  সুতরাং, যদি আপনি Android Oreo ভার্সনের এন

উইন্ডোজ ১০ অটোমেটিক আপডেট বন্ধ করার উপায়

  উইন্ডোজ ১০ বর্তমান সময়ে বহুল ব্যবহৃত একটি গ্রাফিক্যাল অপারেটিং সিস্টেম। এই উইন্ডোজ ১০  অপারেটিং সিস্টেমটি মাইক্রোসফট কোম্পানির অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমের তুলনায় বহুল ব্যবহৃত হয়েছে এবং বহুল প্রসিদ্ধও বটে। আমরা যারা নতুন কম্পিউটার বা ল্যাপটপ ক্রয় করি, আমরা সকলেই মূলত এই উইন্ডোজ ১০ এর বিভিন্ন ভার্সন ব্যবহারের মাধ্যমে কম্পিউটার ব্যবহার শুরু করে থাকি। উইন্ডোজ ১০ এর অন্যান্য জনপ্রিয় ফিচারগুলো থেকে একটি ফিচার হচ্ছে, উইন্ডোজ ১০ অটোমেটিক আপডেট হওয়া। এই ফিচারটির মাধ্যমে মাইক্রোসফট থেকে রিলিজ করা সমস্ত আপডেট ইন্টারনেট কানেকশনের মাধ্যমে প্রতিটি কম্পিউটারে অটোমেটিক আপডেট হয়ে থাকে।  যদিও এই ফিচারটি বহুল জনপ্রিয়, কিন্তু অনেকের নিকট এই ফিচারটি একটি বিরক্তিকর কারন হয়ে উঠে। কিন্তু, উইন্ডোজ ১০ ভার্সনে উইন্ডোজ অটোমেটিক আপডেট হওয়ার বিষয়টি আপনার নিয়ন্ত্রণে নয়। কেননা, কোন সাধারণ মানুষ এই অটোমেটিক আপডেট ফিচারটি বন্ধ করতে পারেনা। সুতরাং, আপনি যদি আপনার ব্যবহার করা কম্পিউটারে উইন্ডোজ ১০ অটোমেটিক আপডেট বন্ধ করার উপায় জানতে চান, তাহলে আজকের আর্টিকেল আপনার জন্য। আজকের আর্টিকেলে আমরা আপনাকে উইন্ডোজ ১০ অটোমেটিক আ